প্রবন্ধ কী? বিখ্যাত বাংলা প্রবন্ধগ্রন্থ ও রচয়িতা


প্ৰবন্ধ কী


ব্যক্তির চিন্তা যখন সুসংহত গদ্য কাঠামো পায় এবং বিভিন্ন যুক্তি দ্বারা তা প্রতিষ্ঠিত হয় তাকে প্রবন্ধ বলে। সহজ কথায় কোনো বিষয়ের ওপর বুদ্ধিভিত্তিক আলোচনাই প্রবন্ধ । প্রবন্ধের সূচনা হয় উনিশ শতকের মাঝামাঝিতে। বাংলা প্রবন্ধ সাহিত্যের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ফোর্ট উইলিয়াম কলেজ।


বাংলা প্রবন্ধ সম্পর্কিত কিছু তথ্য


বাংলা প্রবন্ধধারার প্রবর্তক রাজা রামমোহন রায়।
কথ্যরীতিতে প্রথম প্রবন্ধ রচয়িতা প্যারীচাঁদ মিত্র।
প্রথম সমাজসংস্কারমূলক প্রবন্ধ রচয়িতা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
বাংলা প্রবন্ধ সাহিত্যে প্রথম জীবনচরিত রামরাম বসুর ‘রাজা প্রতাপাদিত্য চরিত্র' (১৮০১)। এটি বাঙালির লেখা, বাংলা অক্ষরে প্রথম মুদ্রিত গ্রন্থ।

বিখ্যাত বাংলা প্রবন্ধগ্রন্থ ও রচয়িতা

 

প্রাবন্ধিক

প্রবন্ধগ্রন্থের নাম

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

‘কমলাকান্তের দপ্তর’, ‘সাম্য’, ‘লোকরহস্য’, ‘কৃষ্ণচরিত’, ‘বিজ্ঞানরহস্য’, ‘মুচিরাম গুড়ের জীবনচরিত’ ।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

‘বিবিধপ্রসঙ্গ' (১৮৮৩): প্রথম প্রকাশিত প্রবন্ধগ্রন্থ ।

‘কালান্তর’, ‘পঞ্চভূত’, ‘বিচিত্ৰপ্ৰবন্ধ’, ‘সাহিত্য’, ‘মানুষের ধর্ম’, ‘সভ্যতার সংকট' ।

কাজী নজরুল ইসলাম

‘তুর্কমহিলার ঘোমটা খোলা' (১৯১৯): প্রথম প্রকাশিত প্রবন্ধ । ‘রাজবন্দীর জবানবন্দী’, ‘যুগবাণী’, ‘রুদ্রমঙ্গল’, ‘দুর্দিনের যাত্রী’।

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

‘নারীর মূল্য’, ‘তরুণের বিদ্রোহ'।

মুহম্মদ আবদুল হাই

‘ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব’, ‘সাহিত্য ও সংস্কৃতি’, ‘ভাষা ও সাহিত্য'

ড. মুহম্মদ এনামুল হক

‘আরাকান রাজসভায় বাংলা সাহিত্য': এটি আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ সহযোগে রচিত। ‘মনীষা মঞ্জুষা’

আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ

‘পদ্মাবতী’, ‘সত্যনারায়ণের পুঁথি’, ‘গোরক্ষ বিজয়’

আব্দুল্লাহ আল মুতী

‘সাগরের রহস্যপুরী’, ‘এসো বিজ্ঞানের রাজ্যে’, ‘রহস্যের শেষ নেই’, ‘আবিষ্কারের নেশায়।

বদরুদ্দীন উমর

‘সংস্কৃতির সংকট’, ‘সাম্প্রদায়িকতা’, ‘সাংস্কৃতিক সাম্প্রদায়িকতা'।

মোহাম্মদ বরকতুল্লাহ

‘নয়া জাতির স্রষ্টা হজরত মোহম্মদ’, ‘পারস্য প্রতিভা' ।

ড. আহমদ শরীফ

‘বিচিত চিন্তা’, ‘সাহিত্য সংস্কৃতি চিন্তা’, ‘স্বদেশ অন্বেষা', ‘যুগ যন্ত্রণা', ‘কালিক ভাবনা’, ‘বাঙালি ও বাংলা সাহিত্য’, ‘স্বদেশ চিন্তা’, ‘বিশ শতকের বাঙালি’, ‘সংস্কৃতি’।

কালী প্রসন্ন ঘোষ

‘প্রভাত চিন্তা', ‘নিভৃত চিন্তা', 'নিশীথ চিন্তা' ।

গোপাল হালদার

‘সংস্কৃতির রূপান্তর’, ‘বাঙালির সংস্কৃতির রূপ’।

আবদুস সাত্তার

‘অরণ্য জনপদে’, ‘অরণ্য সংস্কৃতি'

মোতাহের হোসেন চৌধুরী

‘সংস্কৃতি কথা', 'সভ্যতা' ।

আখতারুজ্জামান ইলিয়াস

‘সংস্কৃতির ভাঙ্গা সেতু'

গুলবদন বেগম

‘হুমায়ুন নামা’

জগদীশচন্দ্র বসু

‘অব্যক্ত’

ড. আনিসুজ্জামান

‘স্বরূপের সন্ধানে'

আকবর আলী খান

‘পরার্থপরতার অর্থনীতি'

ড. মুহম্মদ ইউনুস

‘দারিদ্র্যহীন বিশ্বের অভিমুখে’

খান মুহম্মদ মঈনুদ্দিন

‘যুগস্রষ্টা নজরুল'

যতীন সরকার

‘সাহিত্যের কাছে প্রত্যাশা

ডা. লুৎফর রহমান

‘মহৎ জীবন’, ‘মানব জীবন’, ‘উন্নত জীবন’

আনিসুজ্জামান

‘কাল নিরবধি’ (আত্মজীবনী)

নীহাররঞ্জন রায়

‘বাঙ্গালীর ইতিহাস'

নীরদচন্দ্র চৌধুরী

‘আত্মঘাতী বাঙালী'

 

 

এই পোস্টগুলি আপনার ভাল লাগতে পারে:

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন